Monday , September 16 2019
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / ইসলাম / জুমার দিনের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ আমল

জুমার দিনের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ আমল

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জুমার দিনকে সপ্তাহের শ্রেষ্ঠ দিন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন জুমার দিন হচ্ছে সপ্তাহের ঈদ। চলুন আজকে জেনে নেই জুমার দিনের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ আমল

 

_সূরা কাহ্‌ফ পাঠ :_

হযরত আবু সাঈদ খুদরী (রাঃ) হতে বর্ণিত, নবী (সাঃ) বলেন, *“যে ব্যক্তি জুমআর দিন সূরা কাহ্‌ফ পাঠ করবে তার জন্য দুই জুমআর মধ্যবর্তীকাল জ্যোতির্ময় হবে।”*(নাসাঈ, সুনান, বায়হাকী,হাকেম, মুস্তাদরাক, সহিহ তারগিব ৭৩৫ নং)
অন্য বর্ণনায় আছে, *“যে ব্যক্তি জুমআর দিন সূরা কাহ্‌ফ পাঠ করবে তার জন্য তার ও কা’বা শরীফের মধ্যবর্তী জ্যোতির্ময় হবে।”* (বায়হাকী, শুআবুল ঈমান, জামে ৬৪৭১নং

➡ বেশী বেশী দরুদ পাঠ :
জুমআর রাতে (বৃহ্‌স্পতিবার দিবাগত রাতে) ও (জুমআর) দিনে প্রিয়তম হাবীব মহানবী (সাঃ)-এর শানে অধিকাধিক দরুদ পাঠ করা কর্তব্য। মহানবী (সাঃ) বলেন,

*“তোমাদের সর্বশ্রেষ্ঠ দিন হল, জুমআর দিন। এই দিনে তোমরা আমার প্রতি দরুদ পাঠ কর। যেহেতু তোমাদের দরুদ আমার উপর পেশ করা হয়ে থাকে।* (আবূদাঊদ, সুনান ১৫৩১নং)

তিনি আরো বলেন, *“জুমআর রাতে ও দিনে তোমরা আমার উপর বেশী বেশী দরুদ পাঠ কর। আর যে ব্যক্তি আমার উপর একবার দরুদ পাঠ করবে, সে ব্যক্তির উপর আল্লাহ ১০ বার রহ্‌মত বর্ষণ করবেন।”*(বায়হাকী, সিলসিলাহ সহীহাহ, আলবানী ১৪০৭নং)

➡বেশি বেশি দোয়া করাঃ আবূ হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত,
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একদা জুমার দিন সম্বন্ধে আলোচনা করে বললেন,

*“ওতে এমন একটি মুহূর্ত আছে, কোন মুসলিম ব্যক্তি যদি ঐ মুহূর্তে দাঁড়িয়ে নামায অবস্থায় আল্লাহর কাছে কিছু প্রার্থনা করে, তাহলে আল্লাহ তাকে তা দান করে থাকেন।”*
এ কথা বলে তিনি স্বীয় হাত দ্বারা ইঙ্গিত করলেন, সে মুহূর্তটি খুবই সংক্ষিপ্ত। (বুখারী ও মুসলিম)

আবূ বুর্দাহ ইবনে আবূ মুসা আশআরী রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদা আব্দুল্লাহ ইবনে উমার রাদিয়াল্লাহু আনহু বললেন, *‘আপনি কি জুমার দিনের বিশেষ মুহূর্ত সম্পর্কে আপনার পিতাকে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হতে বর্ণনা করতে শুনেছেন?’ তিনি বলেন, আমি বললাম, ‘হ্যাঁ। আমি তাঁকে বলতে শুনেছি, তিনি বলেছেন, আমি আল্লাহর রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-কে এ কথা বলতে শুনেছি যে, “সেই মুহূর্তটুকু ইমামের মেম্বারে বসা থেকে নিয়ে নামায শেষ হওয়া পর্যন্ত সময়ের ভিতরে।”* (মুসলিম)

Facebook Comments

Check Also

পবিত্র কুরআন সঙ্গে নিয়ে মহাকাশে যাচ্ছেন মুসলিম নভোচারী হাজা

এবার প্রথম কোনো আরব্য যুবক হাজা আল-মানসুরি মহাকাশ ভ্রমণে যাচ্ছেন। তার সফর সঙ্গী হিসেবে থাকছেন …