Wednesday , August 21 2019
Breaking News
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / স্বাস্থ্য / হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাবে এই ৭ খাবার!

হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাবে এই ৭ খাবার!

সকাল থেকে রাত আমাদের কাটাতে হয় খুব ব্যস্ত সময়। আর এই ব্যস্ত জীবনের সূচিতে আসে নানা অনিয়ম! আর ক্রমাগত অনিয়মের ফলে হার্টের নানা সমস্যা আমাদের শরীরে অজান্তেই বাসা বাঁধছে। বেড়েই চলেছে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা। বয়স, অতিরিক্ত মেদ, উচ্চ কোলেস্টোরলের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপ, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, মদ্যপান, মানসিক চাপ— মূলত এগুলিই হার্ট অ্যাটাকের কারণ। তবে এমন কিছু খাবার রয়েছে, যেগুলি নিয়মিত খেতে পারলে সুস্থ থাকে হৃদযন্ত্র। ফলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়। আসুন সেগুলি সম্পর্কে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক…

বেদানা: বেদানায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইটোকেমিক্যাল নামের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যা আর্টারির স্বাস্থ্য ভাল রাখতে সাহায্য করে। ফলে কমে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি।

খেজুর: খেজুরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ও পলিফেনল যা রক্তে কোলেস্টেরল ও ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। ফলে সুস্থ থাকে আমাদের হৃদযন্ত্র।

হলুদ: হলুদে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট উপাদান আর্টারিতে রক্ত জমাট বাঁধতে দেয় না। ফলে রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক থাকে এবং হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমে যায় অনেকটাই।

ব্রকোলি: ব্রকোলিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-কে যা আর্টারির কর্মক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। ব্রকোলিতে থাকা ফাইবার রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

দারচিনি: এই মশলা জাতীয় খাবারে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যা রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমিয়ে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

ক্র্যানবেরি: ক্র্যানবেরির মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কমাতে সাহায্য করে।গ্রিন টি: দিনে অন্তত ২ কাপ গ্রিন টি খেতে পারলে তা রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

Facebook Comments

Check Also

আমড়ার এতো গুণ জানতেন?

কথায় বলে আম আর আমড়া এক নয়। আমের সঙ্গে তুলনায় কম খোঁটা হজম করতে হয় …